Sustain Humanity


Wednesday, October 5, 2016

মোদির সার্জিক্যাল অপারেশনের গল্প ধোপে টেকেনা ঃ Saradindu Uddipan

মোদির সার্জিক্যাল অপারেশনের গল্প ধোপে টেকেনা ঃ 
Saradindu Uddipan
বর্তমান স্যাটেলাইট এবং ডিজিটাল যুগে এই ধরণের গিমিক আখেরে দেশে পক্ষে কতটা অমর্যাদাকর তা হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছে মোদি সরকার। যে যুগে স্যাটেলাইটের দৌলতে একটি পিপড়ের রোমকুপের কম্পন পর্যন্ত দেখা যায় সেখানে সারজিক্যাল অপারেশনের মত সেনা বাহিনীর অভিযান ডকুমেন্টেড হবে এটাই স্বাভাবিক। না, ইউএনও সহ কোন সংস্থাই এই অপারেশনের স্বীকৃতি দিচ্ছে না। বিষয়টি আন্তর্জাতিক দরবারে উঠতে চলেছে।
নির্বাচন বড় বালাইঃ
কালাধন থেকে প্রত্যেক ভাতবাসীর একাউন্টে ১৫০০০০০টাকার প্রতিশ্রুতি একেবারে বুমেরাং হয়ে পড়েছে। মোদির নেতৃত্বেই একেবারে প্রকাশ্যে এসে পড়েছে বিজেপির ফ্যাসিবাদী রূপ। জাতপাতের রোষানলে জ্বলে মরতে হচ্ছে রোহিত ভেমুলাদের। উন্নয়নের বদলে চলছে ন্যায়, নীতি, সম্প্রীতির সাফাই অভিযান। মোদি এবং তার দলের জন সমর্থন একেবারে তলানীতে এসে ঠেকতে শুরু করেছে। বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়েছেন মোদি। ব্যক্তি মোদি এবং রাজনৈতিক মোদি এখন আর বিশ্বাসযোগ্য নন। তাছাড়া সামনে আবার উত্তরপ্রদেশের নির্বাচন। যে প্রদেশ নিয়ন্ত্রণ করে দিল্লীর সিংহাসন। সুতরাং নির্বাচনের ইস্যু চাই। সেই ইস্যুর মধ্য দিয়ে বৈতরণী পার হওয়া চাই। যুদ্ধ জয় নির্বাচনের সাফল্য পাওয়ার একটা বড় ইস্যু। কিন্তু মোদি কী করলেন? কেন এই গল্প? কেন সেনা বাহিনীর পদাধিকারীকে দিয়ে এই বিজ্ঞপ্তি দিলেন? কেন দেশের বিশ্বাসযোগ্যতাকে পথে বসাতে চাইলেন।
আমরা জানি এর আগে ভুরি ভুরি মিথ্যে ডকুমেন্ট পেশ করেছে এই মোদি সরকারের নানা পদাধিকারী মন্ত্রী। মোদি নিজে শিক্ষাগত যোগ্যতার জাল সার্টিফিকেট পেশ করেছেন। জাল সার্টিফিকেট পেশ করেছেন প্রাক্তন মানব সম্পদ মন্ত্রী স্মৃতি ইরানী। তিনি সংসদের উচ্চ কক্ষেও রোহিত মামলা নিয়ে মিথ্যে তথ্য পেশ করতে দ্বিধা করেন নি। কিন্তু দেশের মর্যাদা নিয়ে এরকম খেলা বোধ হয় কম আছে। আমরা সত্যি আশংকা প্রকাশ করছি।